April 14, 2024

The Fourty Rulse of Love PDF Download | দ্য ফরটি রুলস অফ লাভ

the-fourth-rolls-of-love

দ্য ফরটি রুলস অফ লাভ pdf download by এলিফ শাফাক, শাহেদ জামান | ভালোবাসার ৪০ টি নিতি – The Fourty Rulse of Love Bangla Pdf book / বই ডাউনলোড। বাংলা উপন্যাস অনুবাদ বই। 

The Forty Rules of Love pdf download by Elif Shafaq, Shahed Zaman. | 40 principles of love. – The Fourty Rulse of Love Bangla Pdf book. / Book download. Bengali novel translation book.

The Forty Rules of Love Book Review:

Love has no name, no association, love is love, pure and pure love. Love is the water for life. And the fire burns in the essence of the one who loves. And when fire loves water, even the speed of this infinite universe changes.

Love is to be held with the heart. If you do it with the mind, maybe it will be driven only by emotions. But what if love can be contained with the heart?

A novel revolves around Rumi, Elif Shafaq’s The Forty Rules of Love. I read more or less all the books, but how many books are scratched in my mind.

Sufi saints say that the secret of the Qur’an is hidden in Surah Al-Fatihah, and the secret of Al-Fatihah is hidden in the word Bismillahir Rahmanir Rahim, and the secret of Bismillah is in the letter ‘or’. There is a dot in the middle of that letter ….,
And that point holds the whole universe.

The letter ‘or’ is not just a letter, in the case of this book. You will find traces of ‘or’ throughout the book, throughout the book.

Ella is a housewife in Northampton. Whose life was stagnant. Like stagnant water stuck in a pond. The husband had three children and tied himself to a fixed life. But the name of the pond is Shams by turning the water of the pond upside down. What happened in the life of the man who came with a sense of responsibility rather than love?

The current of the story has advanced in the words of innumerable people. One by one, Ella, a drunkard named Sulaiman, a watchman named Beavers, a prostitute named Marugolap, Kara R … and many more have come and gone in the midst of this river basin. Every character in the book was like a closed lake. Then each character is moved, the only character is the saint Shams. Due to which the reverse happens. This Sufi saint reverses the course of life of every bound character. Does the flow of life flowing against this current teach them to swim against the current only? Or teach to hold something else?

Forty Rules of Profit. Forty principles of love. Does the author just keep this policy as a policy? Invisible bonds are given across with many characters. Tied to the retribution of an infallible destiny. From the beginning to the end the invisible thread was tied, everyone from Ella to Shams. Taught to hold love through Shams.

Even if the book is read in the context of the present time, the book is no longer contained. Not all books can be scratched. But these forty principles of love have completely settled in the mind. Some of the scenes came to mind while reading the book. The author has been completely successful in his efforts to glorify each character in his own field.

What can I say about the translator anew. It is as if he has entered the field with an oath to release himself day by day. When I went to read, I didn’t remember whether I was reading basic or translation. After reading The Twentieth Wife, The Fist of Roses, the translator identified her cast. He has nothing new to say in translation.

দ্য ফরটি রুলস অফ লাভ বই রিভিউঃ

ভালোবাসার কোনো নাম হয় না,  কোনো সংঙ্গা হয় না, ভালোবাসা হলো ভালোবাসা, বিশুদ্ধ ও খাঁটি ভালোবাসা। ভালোবাসা হলো জীবনের জন্য পানির স্বরূপ। আর যে ভালোবাসে তার সত্তায় জ্বলে উঠে আগুন। আর আগুন যখন পানিকে ভালোবাসে, তখন এমনকি এই অসীম মহাবিশ্বের গতিও বদলে যায় ।

ভালোবাসাকে ধারণ করতে হয় হৃদয় দিয়ে । মন দিয়ে করলে হয়তো আবেগ দ্বারাই কেবল চালিত হবে। কিন্তু ভালোবাসাকে যদি হৃদয় দিয়ে ধারণ করা যায় তাহলে?

এ নভেল অফ রুমিকে ঘিরে আবর্তিত হয়েছে, এলিফ শাফাকের দ্য ফরটি রুলস অভ লাভ। বই তো সবাই কম বেশী পড়েই থাকি,  কিন্তু কয়টা বই আঁচড় কেটে যায় মনের খাতায়।

সুফী সাধকরা বলেন, কোরআনের গোপন রহস্য লুকিয়ে আছে সূরা আল-ফাতিহার মাঝে, আর আল-ফাতিহার গোপন রহস্য লুকিয়ে আছে বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম কথাটির মাঝে, আর বিসমিল্লাহ-র রহস্য রয়েছে ‘বা’ অক্ষরের মাঝে। সেই অক্ষরের মাঝে রয়েছে একটি ফোটা বা বিন্দু….,
আর সেই বিন্দু ধারণ করেছে গোটা মহাবিশ্বকে।

‘বা’ হরফটি কিন্তু নিছক কোনো হরফ নয়, এই বইয়ের ক্ষেত্রে। পুরোটা বই জুড়ে ‘বা’ এর রেশ খুজে পাবেন, পুরো বইটা জুড়েই।

এলা নর্দামস্পটনের এক গৃহিনী। যার জীবন ছিলো গৎবাঁধা। পুকুরে আটকে থাকা স্থির জলের মতো। স্বামী তিন সন্তান আর গৎবাঁধা জীবনের ছকে বেঁধে ফেলেছিলো নিজেকে। কিন্তু সেই পুকুরের পানিতে ঢিল হিসেবে ছলাৎ করে পুকুরের পানিকে উলট পালট করে ফেলে একটি নাম শামস। যে মানুষটা ভালোবাসার চেয়ে দ্বায়িত্ববোধকে প্রাধান্য দিয়ে এসেছে, এলা সেই মানুষটার জীবনে কি ঘটে গেল হুট করে?

অসংখ্য মানুষের জবানীতে এগিয়েছে গল্পের স্রোতধারা। একে একে এসেছে এলা, সুলায়মন নামের এক মাতাল, বেবার্স নামের এক প্রহরী, মরূগোলাপ নামে ঘোষিত এক গণিকা, কারা আর …… আরো অনেকের জীবন গল্পের স্রোতধারা এসে মিশেছে, এই নদী অববাহিকার মাঝে। বইয়ের ভেতর থাকা প্রত্যেকটি চরিত্রই আবদ্ধ হ্রদের মতো ছিল। তাহলে প্রত্যেকটা চরিত্রকে আন্দোলিত করে ফেলে, একটি মাত্র চরিত্র দরবেশ শামস। যার কারণে ওলট পালট হয়ে যায়। প্রত্যেকটা গৎবাঁধা চরিত্রের জীবনপ্রবাহকে ওলট পালট করে ফেলে এই সুফী দরবেশ। এই স্রোতের বিপরীতে বহমান জীবন প্রবাহ কি তাদের জীবনকে শুধু মাত্র স্রোতের বিপরীতেই সাঁতরাতে শেখায়? নাকি অন্য কিছুকেও ধারণ করতে শেখায়?

ফরটি রুলস অভ লাভ। ভালোবাসার চল্লিশটি নীতি। এই নীতিকে শুধু নীতি হিসেবে রাখেন কি লেখিকা? অদৃশ্য বাঁধন জুড়ে দিয়েছেন অনেক চরিত্রের সাথে। বেঁধেছেন এক অমোঘ নিয়তির প্রতিবিধানে। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত অদৃশ্য সুতো বেঁধে রেখেছিলো, এলা থেকে শামস পর্যন্ত সবাইকে। ভালোবাসাকে ধারণ করতে শিখিয়েছেন শামসের মাধ্যমে।

বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে বই পড়া হলেও বইটাকে ধারণ হয়ে উঠে না আর। সব বই আচড় কাটতে পারে না। কিন্তু ভালোবাসার এই চল্লিশ নীতি একেবারে বসে গিয়েছে মনের ভেতর। কিছু কিছু দৃশ্যপট চোখে ভেসে উঠে বইটি পড়ার সময়। প্রত্যেকটা চরিত্রকে স্ব-স্ব ক্ষেত্রে মহিয়ান করার প্রচেষ্টা সম্পূর্ণ রূপে সফল হয়েছেন লেখক।

অনুবাদকের কথা নতুন করে কি বলবো। যেন দিন কে দিন নিজেকে ছাড়ানোর শপথ নিয়েই মাঠে নেমেছেন। পড়তে গিয়ে মনে থাকেনি মৌলিক পড়ছি নাকি অনুবাদ। দ্য টুয়েন্টিয়েথ ওয়াইফ, দ্য ফিস্ট অফ রোজেস পড়ার পরই অনুবাদক তার জাত চিনিয়েছেন। অনুবাদ কর্মে তার আর নতুন করে কিছু বলার নেই।

    বইয়ের বিবরণ

বইয়ের নামঃ ফরটি রুলস অভ লাভ
লেখকঃ এলিফ শাফাক
অনুবাদকঃ শাহেদ জামান
পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ৪০০ টি।
ক্যাটেগরিঃ উপন্যাস বই
পিডিএফ সাইজঃ ২৫ মেগাবাইট প্রায়।
রকমারি থেকে ক্রয় করার লিঙ্কঃ ফরটি রুলস অভ লাভ বই
Download Now

#বইটি ইন্টারনেট থেকে সংগীত। #লেখকের ক্ষতি আমাদের কাম্য নয়,  বইটির হার্ড কপি কেনার সমর্থ থাকলে বইটির হার্ড কপি কিনে পড়ুন।
#(আমাদের ব্লগের সমস্ত বইগুলো ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত। লেখকের বা প্রকাশনীর যদি কোনো বইয়ের PDF নিয়ে অভিযোগ থাকে তাহলে দয়াকরে জানান, আমাদেরকে জানানোর ২৪ ঘন্টার মধ্যে PDF টি রিমুভ করে দিবো।) ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন। ধন্যবাদ পোস্ট টি পড়ার জন্য।

Dreamer

শিখতে ও শেখাতে ভালোবাসি ...........

View all posts by Dreamer →