July 11, 2024

সহবাস করে রোজা রাখা যায়? | সহবাসের পর রোজা রাখার নিয়ম – শায়খ আহমাদুল্লাহ

আপনি যদি ইন্টারনেটে “সহবাস করে রোজা রাখা যায়?” কিংবা “সহবাসের পর রোজা রাখার নিয়ম” জানতে চান তাহলে এই পোস্ট টি আপনার জন্য প্রিয় ভাই / বোন। আশাকরি পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়লে আপনি উপকৃত হবেন ইনশাআল্লাহ।

গ্রাম বাংলার আমার সহজ সরল ভাই ও বোনেরা এসব কথা কারো কাছে জিঙ্গেসা করতেও লজ্বাবোধ করে থাকেন, আসলে আমি বলি কি ভাই/আপু আপনি যে বিষয়টি না জানেন সেটি জানতে চাওয়া নিয়ে লজ্বাবোধ পাওয়া মোটেই উচিৎ নয় বরং লজ্বা পাওয়া উচিত আপনি যদি সারাজীবন না জেনেই পার করে দেন।

সহবাস করে কি রোজা রাখা যাবে ?

আপনাকে আগেই জানিয়ে রাখি সহবাস করা হলো একটা গুরুত্বপূর্ণ কাজ, আপনি যদি আপনার শরীরের চাহিদা পূরন না করেন তাহলে আপনি পাপে লিপ্ত যেতে পারেন তার সম্ভাবনা ৯৫% রয়েছে; তাই মহান রাব্বুল আলামিন স্বামী স্ত্রী মিলনকে ফরজ করে রেখেছে।
অনেকের ধারনা যে সহবাস করে রোজা রাখা যাবেনা, এটা মনে হতে পারা খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার।

আসুন জেনে নেওয়া যাক সহবাস করে রোজা রাখা যায় কি না?

আমি খোলামেলাভাবেই বলি, আপনি ভোর রাতে সহবাসের পরে যদি মনে করেন গোসল করে সেহরী খেলে সেহরী খাওয়ার টাইম শেষ হয়ে যাবে এমতাবস্থায় আপনি আগে সেহরি খেয়ে রোজা রাখুন। সেহরী খাওয়া হয়ে গেলে ফরজ গোসল সেরে নিবেন এরপরে আপনি পবিত্র।  আর আপনি যদি গোসল না করে থাকেন ইবাদত করেন তাহলে আপনার ইবাদত কবুল হবেনা।

সহবাসের পর রোজা রাখার নিয়ম জেনে নিনঃ

অনেকে আবার মনে করেন রোজা রেখে সহবাস করা যাবে আসলে একবারেই ভুল হবে যদি এ কাজ করেন, রোজা রেখে সহবাস করলে রোজা ভেঙ্গে যাবে। আপনার অথবা আপনার স্ত্রীর সহবাস করার চাহিদা জাগলে ইফতারের পরে করতে পারেন অথবা সাহরি খাওয়ার আগে এরপরে অবশ্যই ফরজ গোসল করতে হবে।

এরকম আরো পোস্ট পেতে আমাদের সাইটের সাথেই থাকুন ধন্যবাদ।

Dreamer

বিশ্বজোড়া পাঠশালা মোর সবার আমি ছাত্র .........

View all posts by Dreamer →