June 17, 2024

ক দিয়ে সাহাবীদের নাম | খ দিয়ে সাহাবীদের নাম অর্থসহ | ন দিয়ে সাহাবীদের নাম

ক,খ এবং ন দিয়ে পুরুষ/ছেলে / মহিলা সাহাবীদের সেরা নামগুলো অর্থসহ – ক,খ,ন দিয়ে কোরআনে বর্ণিত সাহাবীদের নামগুলো। কোরআনে বর্ণিত ক,খ,ন দিয়ে সাহাবীদের শ্রেষ্ঠ নামগুলো।

প্রিয় ভাই ও বোনেরা যারা ইন্টারনেটে বা online এ “ক,খ,ন দিয়ে সাহাবীদের নাম অর্থসহ ” এভাবে খুঁজেছেন তাদের জন্য এই পোস্ট টি লিখতেছি। আশাকরি আপনাদের সবার কাছে ভালো লাগবে ইনশাআল্লাহ।

আসসালামু আলাইকুম। আশাকরি আল্লাহর রহমতে সবাই ভলো আছেন আমিও আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছি, আজকে আমি আপনাদের মানে আমার প্রিয় মুসলিম ভাইবোনের কথা ভেবেই এই পোস্টটি তৈরী করেছি। ইসলামের দৃ‌ষ্টিতে বাচ্চা ভূমিষ্ঠ মানে জন্ম হওয়ার পর পরই শিশুটির সুন্দর একটি নাম রাখা সকল পিতামাতার দায়িত্ব ও কর্তাব্য।

শিশুর নামের অর্থের উপরেই ডিপেন্ড করে শিশুটি বড় হয়ে রাগী মেজাজের কবে নাকি, নরম মনের মানুষ হবে। প্রতিটি মানুষের নামের প্রভাবে কিন্তু ভালো কাজে বা মন্দ কাজে অনিচ্ছাকৃতভাবে জড়িয়ে পড়ে। যাইহোক এ ব্যাপারে অনেক সহীহ হাদিস রয়েছে যা আপনার একটু কষ্ট করে হার্ড কপিতে বা সফট কবি হাদিস বইয়ে অথবা ইউটিউব করে বিভিন্ন হুজুরের মুখে ও শুনতে পারেন।

আমি এই পোস্টে বাছাই করা সুন্দর সুন্দর ক,খ,ন দিয়ে সাহাবীদের নাম শেয়ার করবো, এবং আশাকরি উপকৃত হবেন সবাই।

ক দিয়ে সাহাবীদের নাম অর্থসহঃ

(১) কাব ইবনে উযরা = আমরা আন্তরিকাবে দুঃখিত কারন এ নামটির অর্থ খুজেঁ পেলাম না।
(২) কাতাদা ইবনে নোমান = (নোমান নামের অর্থ হচ্ছে আল্লাহুর সমস্ত নিয়ামত সহ পুরুষ।
(৩) কাব ইবনে মালিক = (মালিক নামের অর্থ হচ্ছে আল্লাহ)

(৪) কায়েস ইবনে সাদ = (কায়েস নামের আরবি অর্থ হলো দুরন্ত মানব।)
(৫) কা’ব ইবনে যুহাইর = আমরা আন্তরিকাবে দুঃখিত কারন এ নামটির অর্থ খুজেঁ পেলাম না।
(৬) কুতবা ইবনে আমির = (আমির নামের অর্থ হচ্ছে নেতা, অগ্রণী, দলপতি।)

(৭) কুর্জ‌ ইবনে জাবির আল-ফিহরি = (জাবির নামের অর্থ হচ্ছে ভাল কাজ সম্পাদনকারী ব্যক্তি, যিনি শক্তিশালী।)
(৮) কুদামা ইবনে মাজউন = আমরা আন্তরিকাবে দুঃখিত কারন এ নামটির অর্থ খুজেঁ পেলাম না।
(৯) কুসাম ইবনে আব্বাস = (আব্বাস নামের অর্থ হচ্ছে সিংহ,শক্তিশালী।)
(১০) কুরযা ইবনে কাব = আমরা আন্তরিকাবে দুঃখিত কারন এ নামটির অর্থ খুজেঁ পেলাম না।

k-n-diye-sahabider-name-orthosoho

খ দিয়ে সাহাবীদের নাম অর্থসহঃ

(১) খাব্বাব ইবনুল আরাত = (খাব্বাব নামের অর্থ হচ্ছে সফল বা বিজয়ী নির্দিষ্ট করে।)
(২) খাদিজা বিনতে খুওয়াইলিদ = (খাদিজা নামের অর্থ হচ্ছে নির্দিষ্ট সময়ের আগে জন্মগ্রহণ করা কন্যা শিশু, অকালজাত কন্যা শিশু।)
(৩) খারাস ইবনে উমাইয়া = (উমাইয়া হলো একটি আরব্য গোত্রের নাম. উমাইয়া শব্দটি আমাহ শব্দের ক্ষুদ্রত্ববাচক বিশেষ্য আর আরবিতে আমাহ বা আমাতুন অর্থ হলো দাসী।)

(৪) খালিদ বিন ওয়ালিদ = (খালিদ নামের অর্থ হচ্ছে অমর, চিরন্তন।
(৫) খালিদ ইবনে আবুল বুকায়র = (আবুল নামের আরবি অর্থ হলো পিতা।)
(৬) খালিদ ইবনে সাঈদ = (সাঈদ নামের অর্থ হচ্ছে মহান, মহিমান্বিত, মহৎ এবং অভিজাত।)
(৭) খালিদ ইবনে রাখবালা = আমরা আন্তরিকাবে দুঃখিত কারন এ নামটির অর্থ খুজেঁ পেলাম না।
(৮) খিরাশ ইবন সাম্মা = আমরা আন্তরিকাবে দুঃখিত কারন এ নামটির অর্থ খুজেঁ পেলাম না।

(৯) খুসাইমা ইবনে সাবিতআনসারি = (খুজাইমা নামের আরবি অর্থ গাবল এলবা ড্রাগনের গাছ।)
(১০) খুনাইস ইবনে হুজাইফা = (হুজাইফা নামের অর্থ নবীর একজন সহচর।)
(১১) খুবাইব ইবনে আদি = (খুবাইব নামের অর্থ মরিচিকা।)
(১২) খুফাফ ইবনে নুদবাহ = আমরা আন্তরিকাবে দুঃখিত কারন এ নামটির অর্থ খুজেঁ পেলাম না।

ন দিয়ে সাহাবীদের নাম অর্থসহঃ

(১) নুয়াইম ইবনে মাসুদ – নামের অর্থ = সফল, খুশি, সুখী।
(২) নাওফিল ইবনে হারিস – নামের অর্থ = আগ্রহী, আকাঙ্ক্ষী।
(৩) নুমান ইবনে বশির – নামের অর্থ = হার্বিংগার অফ গুড থিংস; যিনি সুসংবাদ দেন; সুশিক্ষিত; বুদ্ধিমান।
(৪) নুমান ইবনে আজলান – নামের অর্থ = রাজা, সিংহ।
(৫) নুমান ইবনে মুকাররিন – নামের অর্থ = আল্লাহর সমস্ত নেয়ামত সহ পুরুষ।

(৬) নুয়াইম ইবনে আবদুল্লাহ – নামের অর্থ = আল্লাহর বান্দা।
(৭) নুসাইবা বিনতে কাব – নামের অর্থ = ভাগ্যবতী।
(৮) নুয়াইমান ইবনুল হারিস – নামের অর্থ = অতি সহজকারী।

উপরোক্ত নামগুলো সবই সাহাবীদের নাম, হয়তো কিছু কিছু নামের অর্থ খুজেঁ পাইনি কিন্তু তারপরেও আমার মনে হয় সব নামগুলোর অর্থই পজিটিভ। যাহোক তারপরেও কোনো নাম আপনার শিশুর জন্য নির্বাচন করার পূর্বে নিকটস্থ হুজুরের কাছে নামটি নিয়ে আলোচনা করে দেখে নিবেন।