April 16, 2024

ই দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম | ই দিয়ে মেয়েদের আধুনিক নাম | (৫০০+ বাছাই করা অর্থসহ)

৫০০+ ই দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম অর্থসহ – E diye Meyeder islamic Name Bangla – ই দিয়ে মেয়েদের আধুনিক নাম – ই দিয়ে মেয়েদের নাম অর্থসহ – ই দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক পূর্ণাঙ্গ নাম – ই দিয়ে মেয়েদের নামের তালিকা – ই দিয়ে মেয়েদের আরবি নাম – ই দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক সুন্দর নাম অর্থসহ – ই দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নামের তালিকা।

ই দিয়ে মেয়েদের আমার পছন্দের নামগুলোঃ

(১) ইসিতা – নামের অর্থ = আকাঙ্ক্ষিত; যিনি ইচ্ছা করেন।
(২) ইসমাত আফিয়া – নামের অর্থ = সতী সুন্দরী স্ত্রীলোক।
(৩) ইসমাতারা – নামের অর্থ = বন্ধু।
(৪) ইসমাত মাহমুদা – নামের অর্থ = সতী সুন্দরী।
(৫) ইসমিয়া – নামের অর্থ = জুঁই।
(৬) ইশরাত জামীলা – নামের অর্থ = পবিত্রা বুদ্ধিমতী।
(৭) ইশা – নামের অর্থ = জীবন।
(৮) ইশানা – নামের অর্থ = উজ্জ্বল, সূর্যের আবেগ, প্রভু।
(৯) ইশালে – নামের অর্থ = জান্নাতের ফুল।
(১০) ইসমত সাবিহা – নামের অর্থ = নিশ্চয়তা / দৃঢ়বিশ্বাস।

(১১) ইসরা – নামের অর্থ = সুখ।
(১২) ইসরাত – নামের অর্থ = চকচকে; সুন্দর।
(১৩) ইলহাইদা – নামের অর্থ = মহাবিশ্বের মহাকাব্য।
(১৪) ইলাইনা – নামের অর্থ = ঝলমলে আলো, আলো।
(১৫) ইলিশা – নামের অর্থ = আল্লাহ পরিত্রাণ।
(১৬) ইলোরা – নামের অর্থ = মেঘ।
(১৭) ইশতিমাম – নামের অর্থ = করুণা।
(১৮) ইলাইয়া – নামের অর্থ = দ্য বিউটিফুল ওয়ান, গ্রো ইন লাভ।

(১৯) ইলাসিয়া – নামের অর্থ = আল্লাহের প্রতি নিবেদিত; এলিসার অনুরূপ।
(২০) ইলিয়ানা – নামের অর্থ = আমার আল্লাহ উত্তর দিয়েছেন।
(২১) ইশফাকুন নেসা – নামের অর্থ = সতী / পুণ্যবতী।
(২২) ইশরাত – নামের অর্থ = ভোগ, ইচ্ছা, স্নেহ।
(২৩) ইশানী – নামের অর্থ = ভগবানের নিকটবর্তী, দেবী পার্বতী।
(২৪) ইশারাত – নামের অর্থ = আলোক রশ্মির বিকিরণ।
(২৫) ইয়ুমনা – নামের অর্থ = উত্তম আচরণ।
(২৬) ইয়াসমীন জামীলা – নামের অর্থ = সদ্ব্যবহার সুন্দরী।

(২৭) ইয়াসমীন যারীন – নামের অর্থ = উত্তম আচরণ পুণ্যবতী।
(২৮) ইয়েশা – নামের অর্থ = আলো, আনন্দ, ইচ্ছা।
(২৯) ইরিনা – নামের অর্থ = সুন্দরী মহিলা, আয়ারল্যান্ড থেকে।
(৩০) ইয়াসমিন – নামের অর্থ = সুগন্ধি ফুল, মিষ্টি গন্ধ।
(৩১) ইসানা – নামের অর্থ = দৃঢ় ইচ্ছা, দানশীল, দান।
(৩২) ইসরিয়া – নামের অর্থ = রাতের ভ্রমণ।
(৩৩) ইশ্যা – নামের অর্থ = বসন্ত ঋতু।
(৩৪) ইশিয়া – নামের অর্থ = নারী; জীবন; আয়িশার রূপ।
(৩৫) ইশরিন – নামের অর্থ = নিখুঁত গঠন।

(৩৬) ইলিজা – নামের অর্থ = Isশ্বর আমার শপথ।
(৩৭) ইলমিয়া – নামের অর্থ = সংস্কৃত; ইসলাম শিক্ষা
(৩৮) ইলফা – নামের অর্থ = উৎপত্তি; নরম হৃদয়।
(৩৯) ইরিনা – নামের অর্থ = শান্তির দেবীর মতো।
(৪০) ইরশানা – নামের অর্থ = রংধনু।
(৪১) ইরসা – নামের অর্থ = রামধনু; আইরিস।
(৪২) ইরাইদা – নামের অর্থ = হেরার বংশধর।
(৪৩) ইরা – নামের অর্থ = পৃথিবী, দেবী সরস্বতী।
(৪৪) ইয়ানিয়া – নামের অর্থ = নারী; আল্লাহ করুণাময়।
(৪৫) ইয়াশা – নামের অর্থ = নারী, জীবন, জীবিত।

(৪৬) ইয়াশিয়া – নামের অর্থ = নারী; জীবন।
(৪৭) ইবা – নামের অর্থ = অহংকার; অবজ্ঞা।
(৪৮) ইফা – নামের অর্থ = বিশ্বাস রাখা; সন্তোষজনক।
(৪৯) ইফরিন – নামের অর্থ = বুদ্ধিমান; সাহসী; মনোযোগী।
(৫০) ইফতিয়া – নামের অর্থ = আল্লাহের দান।
(৫১) ইন্তিহা – নামের অর্থ = সমাপ্তি; উপসংহার; শেষ করুন।

আরো পড়ুনঃ ১০০+ শুভ জন্মদিন দাদা স্ট্যাটাস | ভাইয়ের জন্মদিনের শুভেচ্ছা স্ট্যাটাস

(৫২) ইন্তিজারা – নামের অর্থ = বিজয়ী।
(৫৩) ইজরিন – নামের অর্থ = সুন্দর।
(৫৪) ইয়াসমিন – নামের অর্থ = ফুলের নাম।
(৫৫) ইয়ামুনা – নামের অর্থ = আশীষ / সৌভাগ্য।
(৫৬) ইমি – নামের অর্থ = চমৎকার।
(৫৭) ইশা – নামের অর্থ = যে রক্ষা করে।
(৫৮) ইবা – নামের অর্থ = গর্ব, শ্রদ্ধা, সম্মান।
(৫৯) ইফা – নামের অর্থ = বিশ্বাস।
(৬০) ইয়ামীনি – নামের অর্থ = ডান হাত।
(৬১) ইসরাত জাহান – নামের অর্থ = রাজবংশ।

ই দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নামের তালিকাঃ

(১) ইকরাম – নামের অর্থ = সম্মান; আতিথেয়তা; উদারতা।
(২) ইকরামা – নামের অর্থ = সুন্দর।
(৩) ইকরামিয়া – নামের অর্থ = সম্মানিত, মর্যাদাপূর্ণ।
(৪) ইকরাহ – নামের অর্থ = আবৃত্তি করা।
(৫) ইওয়ানা – নামের অর্থ = আল্লাহ করুণাময়।
(৬) ইকবাল – নামের অর্থ = ধন।
(৭) ইকরা – নামের অর্থ = আবৃত্তি পড়ুন; শুরু করুন।
(৮) ইকরিমা – নামের অর্থ = রাজকুমারী।
(৯) ইকলাস – নামের অর্থ = বিশ্বস্ত।
(১০) ইকলিল – নামের অর্থ = মুকুট; মালা; পুষ্পস্তবক।
(১১) ইকারা – নামের অর্থ = গোলাপের সুবাস।
(১২) ইখলাস – নামের অর্থ = আন্তরিকতা, পবিত্রতা, ভক্তি।

ই-দিয়ে-মেয়েদের-ইসলামিক-নাম-ই-দিয়ে-মেয়েদের-আধুনিক-নাম-e-diye-meyeder-islamic-name-bangla

(১৩) ইকলীল – নামের অর্থ = মুকুট; মালা।
(১৪) ইকা – নামের অর্থ = কোমল; Ike এর মেয়েলি।
(১৫) ইকামত – নামের অর্থ = শান্ত; শান্তি; থাকছে।
(১৬) ইখা – নামের অর্থ = ভ্রাতৃত্ব; বোন।
(১৭) ইঘলা – নামের অর্থ = প্রশংসা; প্রশংসা।
(১৮) ইজওয়া – নামের অর্থ = জাঁকজমক।
(১৯) ইজনা – নামের অর্থ = ফেরেশতা।
(২০) ইজন্য – নামের অর্থ = ভালবাসা।
(২১) ইজফা – নামের অর্থ = গুপ্তধন।
(২২) ইজজা – নামের অর্থ = হতে পারে, শক্তি, শক্তি।
(২৩) ইজদিহরে – নামের অর্থ = প্রস্ফুটিত; প্রস্ফুটিত।
(২৪) ইজদিহার – নামের অর্থ = প্রস্ফুটিত; প্রস্ফুটিত।
(২৫) ইজবা – নামের অর্থ = গৃহ।

(২৬) ইজমত – নামের অর্থ = হতে পারে; গুরুত্ব; মহত্ব।
(২৭) ইজমা – নামের অর্থ = উচ্চতর অবস্থান।
(২৮) ইজরীন – নামের অর্থ = প্রেমময়।
(২৯) ইজলাল – নামের অর্থ = সম্মান, সম্মান, গ্র্যান্ড, জাঁকজমকপূর্ণ।
(৩০) ইজলিয়াহ – নামের অর্থ = জনসংখ্যা।
(৩১) ইজমেট – নামের অর্থ = উজ্জ্বল; সুন্দর; দারুণ পূর্ণতা।
(৩২) ইজরা – নামের অর্থ = রাতের যাত্রা।
(৩৩) ইজরিন – নামের অর্থ = সুন্দর।
(৩৪) ইজা – নামের অর্থ = আল্লাহ আমার শপথ।
(৩৫) ইজাজ – নামের অর্থ = কুরআনের অনিবার্যতা।
(৩৬) ইজাদা – নামের অর্থ = জ্ঞান; শ্রেষ্ঠত্ব।

(৩৭) ইজাবো – নামের অর্থ = আশা।
(৩৮) ইজার – নামের অর্থ = তারকা।
(৩৯) ইজারা – নামের অর্থ = স্কারলেট।
(৪০) ইজান – নামের অর্থ = জমা; আনুগত্য; গ্রহণযোগ্যতা।
(৪১) ইজানা – নামের অর্থ = শক্তিশালী নারী।
(৪২) ইজাবেল – নামের অর্থ = সুন্দর।
(৪৩) ইজাহ – নামের অর্থ = প্রিয়তম; সুন্দর।
(৪৪) ইজাহেত – নামের অর্থ = কাজ সম্পন্ন করা।
(৪৫) ইজিলাহ – নামের অর্থ = একজন রাজকুমারী; একজন নিবেদিতপ্রাণ নারী।

(৪৬) ইজেল্লাহ – নামের অর্থ = একজন ভক্ত মহিলা, একজন রাজকুমারী।
(৪৭) ইজি – নামের অর্থ = পরাক্রমশালী।
(৪৮) ইজিন – নামের অর্থ = অনুমতি।
(৪৯) ইজিয়ান – নামের অর্থ = বুদ্ধিমান।

ই দিয়ে মেয়েদের আধুনিক নামগুলোঃ

(৫০) ইজ্জ আন-নিসা – নামের অর্থ = তিনি হাদীসের। বর্ণনাকারী ছিলেন।
(৫১) ইজ্জ-আন-নিসা – নামের অর্থ = হাদিস বর্ণনাকারী।
(৫২) ইজ্জত – নামের অর্থ = সম্মান, হতে পারে, গৌরব, সম্মান।
(৫৩) ইজ্জতি – নামের অর্থ = উন্নতচরিত্র।
(৫৪) ইজ্জান্নিসা – নামের অর্থ = তিনি হাদীসের বর্ণনাকারী ছিলেন।
(৫৫) ইজ্জাহ – নামের অর্থ = সম্মানিত।
(৫৬) ইটসম – নামের অর্থ = সুখী; আনন্দ; চতুরতা।
(৫৭) ইটিডল – নামের অর্থ = সংযম।
(৫৮) ইজ্জা – নামের অর্থ = সম্মান; ক্ষমতা; খ্যাতি; ধনী।
(৫৯) ইজ্জা-আন-নিসা – নামের অর্থ = হাদীসের বর্ণনাকারী।

(৬০) ইজ্জানা – নামের অর্থ = শক্তিশালী নারী।
(৬১) ইটিডাল – নামের অর্থ = প্রতিসাম্য, ভারসাম্য, সহনশীলতা।
(৬২) ইটিয়া – নামের অর্থ = খোদা আমার সাথে আছেন।
(৬৩) ইডালিকা – নামের অর্থ = রাণী।
(৬৪) ইতাব – নামের অর্থ = নিন্দা।
(৬৫) ইতিমাদ – নামের অর্থ = নির্ভরতা; নির্ভরতা।
(৬৬) ইতেমাদ – নামের অর্থ = বিশ্বাস।
(৬৭) ইতকান – নামের অর্থ = দক্ষতা; শ্রেষ্ঠত্ব; আয়ত্ত।
(৬৮) ইতরাত – নামের অর্থ = বংশ।
(৬৯) ইতাফ – নামের অর্থ = নক্ষত্র; ঘড়ি।
(৭০) ইত্তেসাম-সুলতানা – নামের অর্থ = অঙ্কন।
(৭১) ইথার – নামের অর্থ = পছন্দ।
(৭২) ইদাহ – নামের অর্থ = বিশুদ্ধ; দয়ালু; উন্নতচরিত্র।
(৭৩) ইন’আম – নামের অর্থ = দয়া, উপকার, দান।
(৭৪) ইনগা – নামের অর্থ = ক্ষমতাশালী।
(৭৫) ইনজা – নামের অর্থ = শুদ্ধ; ছোট।
(৭৬) ইদ্রাক – নামের অর্থ = বুদ্ধি, উপলব্ধি।
(৭৭) ইদ্রিস – নামের অর্থ = নবীর নাম।
(৭৮) ইধর – নামের অর্থ = ফ্লাফ।
(৭৯) ইনজাহ – নামের অর্থ = সাফল্য।
(৮০) ইনজিয়া – নামের অর্থ = যে কেউ মনে রাখে; নারী।
(৮১) ইনজিলা – নামের অর্থ = গসপেল, দ্য ওয়ার্ড।
(৮২) ইনবার – নামের অর্থ = রত্ন পাথর।
(৮৩) ইনবিস্যাট – নামের অর্থ = প্রফুল্লতা, আনন্দ, সান্ত্বনা।
(৮৪) ইনবিহাজ – নামের অর্থ = প্রফুল্লতা, আনন্দ, আনন্দ, আনন্দ।
(৮৫) ইনটিসার – নামের অর্থ = সফল, বিখ্যাত, সুন্দর।
(৮৬) ইনডেলা – নামের অর্থ = নাইটিঙ্গেলের মতো।
(৮৭) ইনফিসাল – নামের অর্থ = বিচ্যুতি, বিচ্ছেদ, দূরত্ব।
(৮৮) ইনশরাহ – নামের অর্থ = আনন্দ, প্রফুল্লতা, আনন্দ।
(৮৯) ইনশা – নামের অর্থ = উৎপত্তি; উৎপত্তি; সৃষ্টি।
(৯০) ইনশিয়া – নামের অর্থ = নারী; উৎপত্তি।
(৯১) ইনশু – নামের অর্থ = আনন্দ, সুখ, বিশুদ্ধ।
(৯২) ইনশেরা – নামের অর্থ = স্বস্তি, আনন্দময়, আনন্দ।
(৯৩) ইনশারাহ – নামের অর্থ = সুখ ছড়ানো।
(৯৪) ইনশাহ – নামের অর্থ = সৃষ্টি; উৎপত্তি।
(৯৫) ইনশিফা – নামের অর্থ = যে নিরাময় করতে পারে।
(৯৬) ইনশ্রা – নামের অর্থ = মূল্যবান; স্বস্তি।
(৯৭) ইনসা – নামের অর্থ = সামাজিকতা।
(৯৮) ইনসাফ – নামের অর্থ = বিচার; ন্যায্যতা; সমতা।
(৯৯) ইনসিয়া – নামের অর্থ = নারী; রহস্যময়; ভালোবাসার জন্ম।

ই দিয়ে মেয়েদের আরবি নামগুলোঃ

(১০০) ইনসিয়াহ – নামের অর্থ = নারী।
(১০১) ইনসির – নামের অর্থ = প্রফুল্লতা, স্বস্তি, আনন্দময়।
(১০২) ইনাব – নামের অর্থ = আঙ্গুর।
(১০৩) ইনাম – নামের অর্থ = দয়া, উপকারিতা।
(১০৪) ইনাম, ইনাম – নামের অর্থ = দয়া, উপকার, দান।
(১০৫) ইনসেয়া – নামের অর্থ = রহস্যময়, চ্যালেঞ্জিং।
(১০৬) ইনাইরা – নামের অর্থ = আলোর রশ্মি।
(১০৭) ইনান – নামের অর্থ = ফুল।


(১০৮) ইনামা – নামের অর্থ = শিক্ষানবিস।
(১০৯) ইনায়রা – নামের অর্থ = আলোর রশ্মি।
(১১০) ইনায়া – নামের অর্থ = আল্লাহের দান; ফেরেশতা; আল্লাহর দান।
(১১১) ইনায়ে – নামের অর্থ = আল্লাহের কাছ থেকে উপহার।
(১১২) ইনায়েত – নামের অর্থ = আল্লাহের আশীর্বাদ, দয়া
(১১৩) ইনায়েথ – নামের অর্থ = অনুগ্রহ, উদ্বেগ। মনোযোগ।
(১১৪) ইনায়াজোহরা – নামের অর্থ = করুণাময় ফুল।
(১১৫) ইনায়াত – নামের অর্থ = যত্ন, বিবেচনা, সুরক্ষা।
(১১৬) ইনায়াহ – নামের অর্থ = উপহার।
(১১৭) ইনায়েহ – নামের অর্থ = উদ্বেগ।
(১১৮) ইনার – নামের অর্থ = চিরন্তন আলো, স্বর্গীয় কন্যা।
(১১৯) ইনাহার – নামের অর্থ = চিরন্তন আলো; স্বর্গের আলো।

আরো পড়ুনঃ Dermasol N Cream | ডার্মাসল এন ক্রিম এর কাজ, উপকারিতা ও দাম | ডার্মাসল ক্রিম ব্যবহারের নিয়ম


(১২০) ইনিয়া – নামের অর্থ = জল শরীরের।
(১২১) ইনিয়াত – নামের অর্থ = উদ্বেগ মনোযোগ ।
(১২২) ইনারা – নামের অর্থ = আলোর রশ্মি, উজ্জ্বল, আলো।
(১২৩) ইনারাহ – নামের অর্থ = চিরন্তন আলো, আলোর রশ্মি।
(১২৪) ইনাস – নামের অর্থ = সক্ষম, সামাজিকতা, মিষ্টি কণ্ঠ।
(১২৫) ইনিশা – নামের অর্থ = সূর্যালোক; শক্তিশালী; সুপিরিয়র।
(১২৬) ইনিস – নামের অর্থ = পবিত্র, পবিত্র, সঙ্গী, কুমারী।
(১২৭) ইনেজ – নামের অর্থ = বিশুদ্ধ, পবিত্র, কোমল, কুমারী।


(১২৮) ইন্তিজারা – নামের অর্থ = বিজয়ী।
(১২৯) ইন্তিসার – নামের অর্থ = জয়; বিজয়।
(১৩০) ইন্তিহা – নামের অর্থ = সমাপ্তি; উপসংহার; শেষ করুন।
(১৩১) ইন্টিজার – নামের অর্থ = প্রত্যাশা, অপেক্ষার সময়কাল।
(১৩২) ইন্টিসারাত – নামের অর্থ = বিজয়, জয়।
(১৩৩) ইন্টেসার – নামের অর্থ = বিজয়।
(১৩৪) ইন্দামীরা – নামের অর্থ = রাজকন্যার অতিথি।
(১৩৫) ইন্দিরা – নামের অর্থ = সৌন্দর্য; জাঁকজমক।
(১৩৬) ইন্নাইরা – নামের অর্থ = আলোর রশ্মি; উজ্জ্বল।
(১৩৭) ইন্নায়াত – নামের অর্থ = উদারতা, দয়া।


(১৩৮) ইন্নারা – নামের অর্থ = উজ্জ্বল; আলোর রশ্মি।
(১৩৯) ইফজা – নামের অর্থ = প্রতিরক্ষামূলক দেবদূত।
(১৪০) ইফটিন – নামের অর্থ = আলো।
(১৪১) ইন্নামা – নামের অর্থ = শিক্ষানবিস।
(১৪২) ইন্নায় – নামের অর্থ = আল্লাহের জন্য উপহার।
(১৪৩) ইন্নায়থ – নামের অর্থ = দয়া, অনুগ্রহ।
(১৪৪) ইফতারা – নামের অর্থ = সতীত্বের সাজসজ্জাকারী।
(১৪৫) ইফতাশাম – নামের অর্থ = মহিমান্বিত।
(১৪৬) ইফতিয়া – নামের অর্থ = আল্লাহের দান।
(১৪৭) ইফতিসা – নামের অর্থ = আল্লাহের দান।
(১৪৮) ইফতেশাম – নামের অর্থ = মহিমান্বিত।
(১৪৯) ইফতেসাম – নামের অর্থ = হাসি।
(১৫০) ইফতিকার – নামের অর্থ = অহংকার।

ই দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নামের তালিকাঃ

(১৫১) ইফতিখার – নামের অর্থ = গৌরব; সম্মান।
(১৫২) ইফতিনান – নামের অর্থ = মন্ত্রমুগ্ধতা; বিমোহন।
(১৫৩) ইফথ – নামের অর্থ = বিশুদ্ধ, পবিত্র, বুদ্ধিমান।
(১৫৪) ইফথিকা – নামের অর্থ = অহংকার।
(১৫৫) ইফথিন – নামের অর্থ = আলো।
(১৫৬) ইফরা – নামের অর্থ = উচ্চতা, সুখ প্রদান।
(১৫৭) ইফরাহ – নামের অর্থ = খুশি করতে।
(১৫৮) ইফরিত – নামের অর্থ = পরী; ফেরেশতা; জ্বিন।
(১৫৯) ইফধ – নামের অর্থ = দরকারী; শুদ্ধ।
(১৬০) ইফফাত-আরা – নামের অর্থ = সতীত্বের ডেকোরেটর।
(১৬১) ইফফাদথ – নামের অর্থ = বিনয়।
(১৬২) ইফরিন – নামের অর্থ = বুদ্ধিমান; সাহসী; মনোযোগী।


(১৬৩) ইফলা – নামের অর্থ = সুখী; সাফল্য।
(১৬৪) ইফশা – নামের অর্থ = উজ্জ্বল; বেশ।
(১৬৫) ইফা – নামের অর্থ = বিশ্বাস রাখা; সন্তোষজনক।
(১৬৬) ইফা – নামের অর্থ = বিশুদ্ধতা; বিনয়।
(১৬৭) ইফাজা – নামের অর্থ = আলো।
(১৬৮) ইফশানা – নামের অর্থ = কথাসাহিত্য।
(১৬৯) ইফসাহ – নামের অর্থ = ব্রেক ফরথ, ক্লিয়ার, ডিস্টিঙ্ক্ট।
(১৭০) ইফহাম – নামের অর্থ = বন্ধুত্বপূর্ণ, অনুকূল বক্তৃতা।
(১৭১) ইফাত – নামের অর্থ = বিশুদ্ধ।
(১৭২) ইফাথ – নামের অর্থ = সতীত্ব; পুণ্য।
(১৭৩) ইফাদা – নামের অর্থ = শুদ্ধ।
(১৭৪) ইফাশা – নামের অর্থ = উজ্জ্বল; বেশ।
(১৭৫) ইফাহ – নামের অর্থ = বিনয়; বিশুদ্ধতা।
(১৭৬) ইফ্রিথ – নামের অর্থ = পরী; ফেরেশতা।
(১৭৭) ইফাদাত – নামের অর্থ = বিনয়।
(১৭৮) ইফানা – নামের অর্থ = আনন্দ।


(১৭৯) ইফায়া – নামের অর্থ = ক্ষমা।
(১৮০) ইবটিদা – নামের অর্থ = উদ্ভাবন; আবিষ্কার।
(১৮১) ইবটিসাম – নামের অর্থ = হাসি।
(১৮২) ইবতাজ – নামের অর্থ = আনন্দ।
(১৮৩) ইবতিহল – নামের অর্থ = প্রার্থনা; প্রার্থনা।
(১৮৪) ইবতিহাজ – নামের অর্থ = আনন্দ।
(১৮৫) ইবতিহাল – নামের অর্থ = প্রার্থনা।
(১৮৬) ইবতিগা – নামের অর্থ = অনুসন্ধান।
(১৮৭) ইবতিঘা – নামের অর্থ = অনুসন্ধান।
(১৮৮) ইবতিসাম – নামের অর্থ = হাসি।
(১৮৯) ইবতেশাম – নামের অর্থ = হাসছে।
(১৯০) ইবতেসাম – নামের অর্থ = হাসি।

(১৯১) ইবতেহাজ – নামের অর্থ = আনন্দ; আনন্দ।
(১৯২) ইবরাহ – নামের অর্থ = প্রজ্ঞা; উপদেশ।
(১৯৩) ইবা – নামের অর্থ = অহংকার; অবজ্ঞা।
(১৯৪) ইবদা – নামের অর্থ = আদর করেছে।
(১৯৫) ইবনা – নামের অর্থ = উপহার।
(১৯৬) ইবর – নামের অর্থ = ফুলের কলঙ্ক, প্রস্থ।
(১৯৭) ইবাদ – নামের অর্থ = আল্লাহের ভৃত্য; আবদের বহুবচন।
(১৯৮) ইবাদাত – নামের অর্থ = প্রার্থনা, ভক্তি।
(১৯৯) ইবাদাহ – নামের অর্থ = প্রার্থনা।
(২০০) ইব্রিসাম – নামের অর্থ = রেশম।

ই দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক সুন্দর নাম অর্থসহ

(২০১) ইমজা – নামের অর্থ = স্বাক্ষর।
(২০২) ইমজিয়া – নামের অর্থ = সুন্দর; যত্নশীল।
(২০৩) ইবাদী – নামের অর্থ = আবদের বহুবচন; আল্লাহের ভৃত্য।
(২০৪) ইবুকুন – নামের অর্থ = আশীর্বাদ; শুভ কামনা।
(২০৫) ইব্রিজ – নামের অর্থ = খাঁটি সোনা।
(২০৬) ইমটিনান – নামের অর্থ = কৃতজ্ঞতা; কৃতজ্ঞতা; কৃতজ্ঞ।


(২০৭) ইমতিথাল – নামের অর্থ = বিনয়ী আনুগত্য।
(২০৮) ইমনি – নামের অর্থ = বিশ্বাসী।
(২০৯) ইমমা – নামের অর্থ = নেতৃত্ব; কমান্ড।
(২১০) ইমমি – নামের অর্থ = যিনি জগ থেকে জল ালছেন।
(২১১) ইমতিয়াজ – নামের অর্থ = পার্থক্য, অনার মার্ক।
(২১২) ইমতিসাল – নামের অর্থ = আনুগত্য, মেনে চলা।
(২১৩) ইমতিহাল – নামের অর্থ = আনুগত্য; ভদ্র।
(২১৪) ইমরা – নামের অর্থ = শক্তিশালী, দৃঢ়, একগুঁয়ে।
(২১৫) ইমরাত – নামের অর্থ = চতুর; ভালবাসা।
(২১৬) ইমরানা – নামের অর্থ = জনসংখ্যা, সমাজতন্ত্র, শক্তিশালী।


(২১৭) ইমসেরা – নামের অর্থ = বুদ্ধিমান।
(২১৮) ইমহাল – নামের অর্থ = সহনশীলতা, ধৈর্যশীল হওয়া।
(২১৯) ইমাইন – নামের অর্থ = বিশ্বাস; বিশ্বাস।
(২২০) ইমাদ – নামের অর্থ = সাহসী।
(২২১) ইমরাহ – নামের অর্থ = শক্তিশালী।
(২২২) ইমশা – নামের অর্থ = বুদ্ধিমান।
(২২৩) ইমসাল – নামের অর্থ = অনন্য, এক ধরনের।
(২২৪) ইমান – নামের অর্থ = বিশ্বাস, বিশ্বাস, বিশ্বস্ত।
(২২৫) ইমানা – নামের অর্থ = বিশ্বাস; বিশ্বাস।
(২২৬) ইমানি – নামের অর্থ = বিশ্বস্ত; আশীর্বাদ।
(২২৭) ইমাহ – নামের অর্থ = এখন; কাজ; অনুকরণ; প্রতিদ্বন্দ্বী।


(২২৮) ইমেন – নামের অর্থ = ক্ষমতাশালী।
(২২৯) ইমেলদাহ – নামের অর্থ = সার্বজনীন যুদ্ধ।
(২৩০) ইমাম – নামের অর্থ = বিশ্বাসের নেতা।
(২৩১) ইমারাহ – নামের অর্থ = ভিজিট / টেন্ড।
(২৩২) ইমালা – নামের অর্থ = নিয়মানুবর্তিতা; শৃঙ্খলা।
(২৩৩) ইম্প্রা – নামের অর্থ = রাণী।
(২৩৪) ইয়াজা – নামের অর্থ = পরী।
(২৩৫) ইয়ান – নামের অর্থ = সময়।
(২৩৬) ইয়াশাহ – নামের অর্থ = নারী; জীবন।
(২৩৭) ইয়াশিয়া – নামের অর্থ = নারী; জীবন।
(২৩৮) ইরজা – নামের অর্থ = কুল।


(২৩৯) ইয়ানাত – নামের অর্থ = সহায়তা; সাহায্য; সাহায্য।
(২৪০) ইয়ানিয়া – নামের অর্থ = নারী; আল্লাহ করুণাময়।
(২৪১) ইয়াশা – নামের অর্থ = নারী, জীবন, জীবিত।
(২৪২) ইরডিনা – নামের অর্থ = অহংকার।
(২৪৩) ইরতজা – নামের অর্থ = অনুমোদন; তৃপ্তি।
(২৪৪) ইরতিকা – নামের অর্থ = শেষ।
(২৪৫) ইরতেজা – নামের অর্থ = সন্তুষ্টি; গুণী নারী।
(২৪৬) ইরফা – নামের অর্থ = জ্ঞান, প্রজ্ঞা, স্বীকৃতি।
(২৪৭) ইরফাক – নামের অর্থ = স্বয়ং।
(২৪৮) ইরফাত – নামের অর্থ = তীর্থস্থান।
(২৪৯) ইরতিজা – নামের অর্থ = সন্তুষ্টি, অনুমোদন।
(২৫০) ইরতিফা – নামের অর্থ = উচ্চতা।

ই দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক পূর্ণাঙ্গ নাম

(২৫১) ইরতিসা – নামের অর্থ = উন্নতচরিত্র; তৃপ্তি।
(২৫২) ইরফানা – নামের অর্থ = কৃতজ্ঞতা, উজ্জ্বল।
(২৫৩) ইরমা – নামের অর্থ = সার্বজনীন, ধ্রুব আন্দোলন।
(২৫৪) ইরসিয়া – নামের অর্থ = বিস্ময়ের রং; রংধনু।
(২৫৫) ইরহা – নামের অর্থ = শান্ত করতে, নির্মল করতে।
(২৫৬) ইরা – নামের অর্থ = পৃথিবী, দেবী সরস্বতী।
(২৫৭) ইরশত – নামের অর্থ = নির্দেশনা।
(২৫৮) ইরশানা – নামের অর্থ = রংধনু।


(২৫৯) ইরসা – নামের অর্থ = রামধনু; আইরিস।
(২৬০) ইরাইদা – নামের অর্থ = হেরার বংশধর।
(২৬১) ইরাজ – নামের অর্থ = ফুল।
(২৬২) ইরান্না – নামের অর্থ = সুখী; প্রেমময়।
(২৬৩) ইরাম – নামের অর্থ = জান্নাতে বাগান।
(২৬৪) ইরায়েডস – নামের অর্থ = সিকার।
(২৬৫) ইরাদাত – নামের অর্থ = ইচ্ছা; ইচ্ছা; অভিপ্রায়।
(২৬৬) ইরান – নামের অর্থ = ইরান; আর্যদের দেশ।
(২৬৭) ইরানশি – নামের অর্থ = পৃথিবীর অংশ।
(২৬৮) ইরাশা – নামের অর্থ = শান্তির বন্ধন; শান্তিপূর্ণ।
(২৬৯) ইরিন – নামের অর্থ = শান্তিপূর্ণ।
(২৭০) ইলকিস – নামের অর্থ = শেবার রানী।
(২৭১) ইলতিকা – নামের অর্থ = প্রভুর দান।
(২৭২) ইলতিমাস – নামের অর্থ = অনুরোধ; আপীল; বিনীত।


(২৭৩) ইরিনা – নামের অর্থ = শান্তির দেবীর মতো।
(২৭৪) ইরুফা – নামের অর্থ = প্রজ্ঞা; রোগী।
(২৭৫) ইরুম – নামের অর্থ = জান্নাত; স্বর্গ।
(২৭৬) ইলফা – নামের অর্থ = উৎপত্তি; নরম হৃদয়।
(২৭৭) ইলম – নামের অর্থ = জুবায়দাহের দাস।
(২৭৮) ইলসা – নামের অর্থ = আল্লাহের কাছে অঙ্গীকার; আল্লাহের প্রতিশ্রুতি; সৃষ্টিকর্তা।
(২৭৯) ইলহান – নামের অর্থ = সম্মানজনক; চমৎকার; মূল্যবান।
(২৮০) ইলহানা – নামের অর্থ = সুখ, চমৎকার।
(২৮১) ইলমা – নামের অর্থ = দৃঢ় রক্ষক, শক্তিশালী হেলমেট।


(২৮২) ইলমিয়া – নামের অর্থ = সংস্কৃত; ইসলাম শিক্ষা
(২৮৩) ইলমেয়াত – নামের অর্থ = জ্ঞান।
(২৮৪) ইলহাম – নামের অর্থ = অন্তর্দৃষ্টি।
(২৮৫) ইলহেম – নামের অর্থ = অনুপ্রেরণা।
(২৮৬) ইলানা – নামের অর্থ = রোদ, গাছ, নরম করার জন্য।
(২৮৭) ইলানি – নামের অর্থ = সুন্দর আত্মা।
(২৮৮) ইলাইদা – নামের অর্থ = অ্যাঞ্জেলা অশ্রু।
(২৮৯) ইলাইনা – নামের অর্থ = গাছ।
(২৯০) ইলাফ – নামের অর্থ = সুরক্ষা।
(২৯১) ইলাহা – নামের অর্থ = দেবী।
(২৯২) ইলিজা – নামের অর্থ = Isশ্বর আমার শপথ।
(২৯৩) ইলিয়া – নামের অর্থ = উন্নতচরিত্র; উচ্চ শ্রেণী।
(২৯৪) ইলিয়ানা – নামের অর্থ = উজ্জ্বল / উজ্জ্বল / উজ্জ্বল, ট্রোজান।


(২৯৫) ইলিয়াস – নামের অর্থ = আল্লাহর এক নবীর নাম।
(২৯৬) ইলিন – নামের অর্থ = আলো।
(২৯৭) ইলিনা – নামের অর্থ = রাণী।
(২৯৮) ইলিমা – নামের অর্থ = ফুল।
(২৯৯) ইলিয়েন – নামের অর্থ = উচ্চের সর্বোচ্চ।
(৩০০) ইলিশা – নামের অর্থ = পৃথিবীর রাণী; নির্মম।

E diye meyeder islamic name bangla

(৩০১) ইশনা – নামের অর্থ = ভগবান শ্রীকৃষ্ণ।
(৩০২) ইশফাক – নামের অর্থ = স্নেহ; সমবেদনা।
(৩০৩) ইশমল – নামের অর্থ = ফুল।
(৩০৪) ইশক – নামের অর্থ = কখনোও শেষ হবে না; ভালবাসা।
(৩০৫) ইশকা – নামের অর্থ = ভালবাসা; পবিত্র।
(৩০৬) ইশতার – নামের অর্থ = ব্যাবিলনীয় প্রেমের দেবী।
(৩০৭) ইশমা – নামের অর্থ = বিশুদ্ধতা, বিনয়, অসম্পূর্ণতা।
(৩০৮) ইশমাত – নামের অর্থ = সুরক্ষা, অবিশ্বাস্যতা।
(৩০৯) ইশরাত – নামের অর্থ = কামনা, স্নেহ, উপভোগ।
(৩১০) ইশরাত জাহান – নামের অর্থ = মনোরম পৃথিবী।
(৩১১) ইশরথ – নামের অর্থ = সূর্যোদয়, সুখ, সঙ্গ।
(৩১২) ইশরা – নামের অর্থ = সাহচর্য, ফেলোশিপ।
(৩১৩) ইশরাক – নামের অর্থ = তেজ।
(৩১৪) ইশরাত-জাহান – নামের অর্থ = আনন্দদায়ক পৃথিবী।
(৩১৫) ইশরাহ – নামের অর্থ = সাহচর্য, ফেলোশিপ।
(৩১৬) ইশরিন – নামের অর্থ = নিখুঁত গঠন।

(৩১৭) ইশারা – নামের অর্থ = একটি চিহ্ন; ঘটমান বিষয়।
(৩১৮) ইশাল – নামের অর্থ = সুন্দরী রানী; স্বর্গের ফুল।
(৩১৯) ইশিকা – নামের অর্থ = পবিত্র, পবিত্র পেইন্ট ব্রাশ।
(৩২০) ইশা – নামের অর্থ = জীবিত; She who Lives; জীবন; বাস।
(৩২১) ইশানা – নামের অর্থ = দেবী দুর্গা।
(৩২২) ইশামা – নামের অর্থ = ভারতের রানী; মোমবাতির আলো।
(৩২৩) ইশিয়া – নামের অর্থ = নারী; জীবন; আয়িশার রূপ।
(৩২৪) ইশ্যা – নামের অর্থ = বসন্ত ঋতু।
(৩২৫) ইসফা – নামের অর্থ = ধন; প্রেমময়।
(৩২৬) ইসবা – নামের অর্থ = ভোরবেলা।
(৩২৭) ইসবাহ – নামের অর্থ = ভোরবেলা।
(৩২৮) ইসওয়া – নামের অর্থ = পথিকৃৎ; ভালো উদাহরণ।
(৩২৯) ইসতিলাহ – নামের অর্থ = চুক্তি।
(৩৩০) ইসনাহ – নামের অর্থ = সুন্দর।
(৩৩১) ইসভা – নামের অর্থ = সকাল।
(৩৩২) সকাল – নামের অর্থ = বিশুদ্ধতা, বিনয়, অসম্পূর্ণতা।
(৩৩৩) ইসমত-আরা – নামের অর্থ = বিনয়ের সজ্জা।
(৩৩৪) ইসমাতা – নামের অর্থ = সংরক্ষণ, সুরক্ষা।
(৩৩৫) ইসমাতাহ – নামের অর্থ = অসম্পূর্ণতা, সংরক্ষণ।
(৩৩৬) ইসমাথ – নামের অর্থ = মহত্ত্ব; বিনয়।
(৩৩৭) ইসমতারা – নামের অর্থ = বিনয়ী সজ্জা।
(৩৩৮) ইসমতে – নামের অর্থ = অসম্পূর্ণতা, সংরক্ষণ।
(৩৩৯) ইসমা – নামের অর্থ = সুরক্ষা।
(৩৪০) ইসমাহ – নামের অর্থ = বিশুদ্ধতা; বিনয়; অনবদ্যতা।
(৩৪১) ইসমি – নামের অর্থ = জ্ঞানী।
(৩৪২) ইসর – নামের অর্থ = মনোমুগ্ধকর।
(৩৪৩) ইসরা – নামের অর্থ = স্বাধীনতা; নিশাচর / রাতের যাত্রা।
(৩৪৪) ইসরাত – নামের অর্থ = সুখ, স্বাস্থ্যকর, আনন্দদায়ক।
(৩৪৫) ইসরিয়া – নামের অর্থ = রাতের ভ্রমণ।
(৩৪৬) ইসমি – নামের অর্থ = সম্মানিত; দয়ালু ডিফেন্ডার।
(৩৪৭) ইসমিয়া – নামের অর্থ = জুঁই।
(৩৪৮) ইসমোটারা – নামের অর্থ = ধন্যবাদ।
(৩৪৯) ইসলাহ – নামের অর্থ = ঠিক করা – উন্নত করা।
(৩৫০) ইসসা – নামের অর্থ = মসীহ।

ই দিয়ে মেয়েদের নাম অর্থসহ

(৩৫১) ইসাফ – নামের অর্থ = স্বস্তি; সাহায্য।
(৩৫২) ইসাহ – নামের অর্থ = রাতের প্রার্থনা।
(৩৫৩) ইসির – নামের অর্থ = অনুপ্রেরণামূলক; শক্তিশালী।
(৩৫৪) ইসসাম – নামের অর্থ = নিরাপত্তা বেষ্টনী।
(৩৫৫) ইসাদ – নামের অর্থ = আশীর্বাদ; অনুকূল।
(৩৫৬) ইসানা – নামের অর্থ = দৃঢ় ইচ্ছা, দানশীল, দান।
(৩৫৭) ইসুদ – নামের অর্থ = সূক্ষ্ম শরীরের একজন মহিলা।
(৩৫৮) ইসেস – নামের অর্থ = প্রচুর; জাঁকজমক; বৃদ্ধি।
(৩৫৯) ইস্তিগফার – নামের অর্থ = আল্লাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করুন।
(৩৬০) ইস্তিবশার – নামের অর্থ = সুখী / আশাবাদী হতে
(৩৬১) ইস্মিতা – নামের অর্থ = ব্যক্তিত্ব।
(৩৬২) ইহকাম – নামের অর্থ = সিদ্ধান্তহীনতা; শ্রেষ্ঠত্ব; আয়ত্ত।
(৩৬৩) ইস্তাবরাক – নামের অর্থ = একটি কাপড় যা জান্নাকে কে রাখে।
(৩৬৪) ইস্তাব্রাক – নামের অর্থ = ব্রোকেড।
(৩৬৫) ইস্তিকলাল – নামের অর্থ = স্বাধীনতা; সার্বভৌমত্ব।
(৩৬৬) ইহতিরম – নামের অর্থ = বিবেচনা, সম্মান, সম্মান।
(৩৬৭) ইহতিশাম – নামের অর্থ = আড়ম্বর, মহিমা, সতীত্ব।
(৩৬৮) ইহরাম – নামের অর্থ = বিশেষ, সাদা কাপড়।
(৩৬৯) ইহা একটি – নামের অর্থ = নবী, প্রেম, যীশু।
(৩৭০) ইহাব – নামের অর্থ = অনুদান; দান করা; উপহার; চামড়া।
(৩৭১) ইহিশা – নামের অর্থ = যিনি বেঁচে থাকেন; জীবিত।
(৩৭২) ইশানা – নামের অর্থ = সমৃদ্ধ, ধনী, দেবী দুর্গা।
(৩৭৩) ইহসানা – নামের অর্থ = আনুকূল্য; ভালোর সেরা।
(৩৭৪) ইহসানে – নামের অর্থ = দানশীলতা।
(৩৭৫) ইহা – নামের অর্থ = পৃথিবী; ইচ্ছা।

(৩৭৬) ইজান – নামের অর্থ = সুন্দর, মনোমুগ্ধকর, বাধ্য
(৩৭৭) ইজাহ – নামের অর্থ = একজন ব্যক্তি যিনি সম্মান প্রদান করেন
(৩৭৮) ইজ্জত – নামের অর্থ = অন্তরঙ্গতা / বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক
(৩৭৯) ইইহা – নামের অর্থ = উৎসাহিত করতে
(৩৮০) ইজদেহার – নামের অর্থ = কাউকে হৃদয় দিয়ে ভালবাসা
(৩৮১) ইজলিন – নামের অর্থ = স্বাধীনতা
(৩৮২) ইটিমাদ – নামের অর্থ = উপর নির্ভর করা; শরণার্থী নিতে
(৩৮৩) ইতেমাদ – নামের অর্থ = নির্ভরতা, বিশ্বাস
(৩৮৪) ইত্যাদি – নামের অর্থ = স্বর্গীয় গন্ধ
(৩৮৫) ইফতিখারুন্নিসা – নামের অর্থ = সতী পর্দানিশীন স্ত্রীলোক
(৩৮৬) ইফফত – নামের অর্থ = আরাম করা
(৩৮৭) ইফফাত ওয়াসীমাত – নামের অর্থ = সুগন্ধিফুল সুন্দর
(৩৮৮) ইথার – নামের অর্থ = অন্য একজনকে ভালোবাসতে
(৩৮৯) ইথিবল – নামের অর্থ = রোজ পেডেল
(৩৯০) ইনাথ – নামের অর্থ = দরকারী

(৩৯১) ইফফাত কারিমা – নামের অর্থ = সতী পবিত্রা
(৩৯২) ইফফাত তাইয়িবা – নামের অর্থ = সোনালী জেসমীন ফুল
(৩৯৩) ইফফাত সানজিদা – নামের অর্থ = আরাম / স্বাচ্ছন্দ
(৩৯৪) ইফফাত হাসিনা – নামের অর্থ = সতী চিন্তাশীলা
(৩৯৫) ইফফাত ফাহমীদা – নামের অর্থ = সতী প্রশংসিতা
(৩৯৬) ইফফাত মুকাররামাহ – নামের অর্থ = নারীসমাজের গৌরব

(৩৯৭) ইফফাত যাকিয়া – নামের অর্থ = সতী বুদ্ধিমতী
(৩৯৮) ইফাত – নামের অর্থ = মাতৃ / জাতির দয়া
(৩৯৯) ইফাত হাবীবা – নামের অর্থ = সতী চিন্তাশীলা
(৪০০) ইবটিসাম – নামের অর্থ = হাসি
(৪০১) ইমানি – নামের অর্থ = বিশ্বাস; বিশ্বাসী
(৪০২) ইয়াকীনাহ – নামের অর্থ = আশীষ / সৌভাগ্য
(৪০৩) ইবশার – নামের অর্থ = উত্তম / বাছাই করা
(৪০৪) ইমন – নামের অর্থ = আশা; নতুন চাঁদ
(৪০৫) ইয়াকূত – নামের অর্থ = ফুলের নাম / জেছমিন
(৪০৬) ইয়াসমিন – নামের অর্থ = সুগন্ধি ফুল, মিষ্টি গন্ধ
(৪০৭) ইয়াসীরাহ – নামের অর্থ = মূল্যবান পাথর
(৪০৮) ইয়ুমনা – নামের অর্থ = উত্তম আচরণ
(৪০৯) ইয়াসমীন জামীলা – নামের অর্থ = সদ্ব্যবহার সুন্দরী
(৪১০) ইয়াসমীন যারীন – নামের অর্থ = উত্তম আচরণ পুণ্যবতী
(৪১১) ইয়েশা – নামের অর্থ = আলো, আনন্দ, ইচ্ছা
(৪১২) ইরিনা – নামের অর্থ = সুন্দরী মহিলা, আয়ারল্যান্ড থেকে
(৪১৩) ইরেলা – নামের অর্থ = পবিত্র রসূল; ফেরেশতা
(৪১৪) ইরেশ্বা – নামের অর্থ = ধার্মিক; সৎ; আন্তরিক
(৪১৫) ইরা – নামের অর্থ = দয়ালু
(৪১৬) ইরাজ – নামের অর্থ = সকালের আলো
(৪১৭) ইরাম – নামের অর্থ = স্বর্গ
(৪১৮) ইলহাইদা – নামের অর্থ = মহাবিশ্বের মহাকাব্য
(৪১৯) ইলাইনা – নামের অর্থ = ঝলমলে আলো, আলো
(৪২০) ইলিশা – নামের অর্থ = আল্লাহ পরিত্রাণ
(৪২১) ইলোরা – নামের অর্থ = মেঘ
(৪২২) ইশতিমাম – নামের অর্থ = করুণা
(৪২৩) ইলাইয়া – নামের অর্থ = দ্য বিউটিফুল ওয়ান, গ্রো ইন লাভ
(৪২৪) ইলাসিয়া – নামের অর্থ = আল্লাহের প্রতি নিবেদিত; এলিসার অনুরূপ
(৪২৫) ইলিয়ানা – নামের অর্থ = আমার আল্লাহ উত্তর দিয়েছেন
(৪২৬) ইশফাকুন নেসা – নামের অর্থ = সতী / পুণ্যবতী
(৪২৭) ইশরাত – নামের অর্থ = ভোগ, ইচ্ছা, স্নেহ
(৪২৮) ইশানী – নামের অর্থ = ভগবানের নিকটবর্তী, দেবী পার্বতী
(৪২৯) ইশারাত – নামের অর্থ = আলোক রশ্মির বিকিরণ
(৪৩০) ইশাল – নামের অর্থ = স্বর্গে ফুলের নাম
(৪৩১) ইশরাত জামীলা – নামের অর্থ = পবিত্রা বুদ্ধিমতী
(৪৩২) ইশা – নামের অর্থ = জীবন

(৪৩৩) ইশানা – নামের অর্থ = উজ্জ্বল, সূর্যের আবেগ, প্রভু
(৪৩৪) ইশালে – নামের অর্থ = জান্নাতের ফুল
(৪৩৫) ইসমত সাবিহা – নামের অর্থ = নিশ্চয়তা / দৃঢ়বিশ্বাস
(৪৩৬) ইসরা – নামের অর্থ = সুখ
(৪৩৭) ইসরাত – নামের অর্থ = চকচকে; সুন্দর
(৪৩৮) ইসাফ – নামের অর্থ = প্রথম কেয়ার

(৪৩৯) ইসমাত আফিয়া – নামের অর্থ = সতী সুন্দরী স্ত্রীলোক
(৪৪০) ইসমাতারা – নামের অর্থ = বন্ধু
(৪৪১) ইসমাত মাহমুদা – নামের অর্থ = সতী সুন্দরী
(৪৪২) ইসমিয়া – নামের অর্থ = জুঁই
(৪৪৩) ইসিতা – নামের অর্থ = আকাঙ্ক্ষিত; যিনি ইচ্ছা করেন

#ই অক্ষর দিয়ে মেয়ে শিশুদের আরো অনেক নাম সংগ্রহ করে এখানে যুক্ত করে দিতে পারতাম, কিন্তু আমি বাছাই করে মোটামুটি যে কয়টা ভালো সেগুলো দিলাম।
#পোস্টটি লিখতে আমার প্রায় ২৪ ঘন্টা লেগেছে, তাই দয়াকরে কপি করলে ক্রেডিট দিবেন।

###ভিজিটর ভাই ও বোনরা এই পোস্টে যেসকল নাম আমি দিয়েছি অর্থসহ এগুলো আমি ইন্টারনেট থেকেই দেখে লিখেছি নিজের হাতে, নিজেরমতো করে সাজিয়ে গুছিয়ে একটা একটা করে; আমি একারণেই বলতেছি যাতে আপনারা এখানের কোনো নামের অর্থ দেখেই তাড়াহুড়া করে নামটি রাখার সিদ্ধান্তে না পৌছান। আমার ইন্টারনেট থেকে খুজেঁ লেখায় ভুল ভ্রান্তি হতেই পারে কিন্তু আপনি কোন নাম নির্বাচন করার পরে সেটি সার্চ ইন্জিনে অথবা কাজের মসজিদের অভিজ্ঞ হুজুরের সাথে পরামর্শ করুন নামটি নিয়ে তারপরে আপনার শিশুর জন্য রাখুন।

আরো পড়ুনঃ দাজ্জালের ছবি ডাউনলোড | Dajjaler Pictures Download 

যেকোনো ধরনের ওয়েবসাইট তৈরি করতে চাইলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন, সল্পমূল্যে ওয়েবসাইট তৈরী করে দিবো, এছাড়াও যেকোনো ধরনের সহযোগিতার জন্য মনখুলে আপনার সমস্যার কথা জানাতে পারেন, আমরা আপনার মেসেজটি চেক করে অবশ্যই হেল্প করার চেষ্টা করবো, আমার সাধ্যে থেকে থাকলে।

আপনি যদি টেক লাভার হয়ে থাকেন, তাহলে আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করে; আমাদের চ্যানেলে থাকা ভিডিওগুলো দেখতে পারেন, আশাকরি আপনি উপকৃত হবেন। আমি প্রতিটি ভিডিওতে সত্য বিষয়টি জানানোর চেষ্টা করি। আপনি যদি অনলাইন বা ইন্টারনেট থেকে ইনকাম করতে চান তাহলে আমাদের চ্যানেলে গিয়ে Online Earning প্লেলিস্টে গিয়ে ভিডিওগুলো দেখুন।

পোস্টটি পড়ে উপকৃত হয়ে থাকলে, পোস্ট লিংকটি কপি করে আপনার ফেসবুক আইডিতে একটি পোস্ট দিয়ে সকল বন্ধুদের মাঝে ছড়িয়ে দিন, যেনো তারাও লাভবান হয়।