June 20, 2024

অসমাপ্ত আত্মজীবনী – শেখ মুজিবর রহমান PDF Download | বঙ্গবন্ধুর বই pdf -purepdfbook

অসমাপ্ত আত্মজীবনী

bangabandhu sheikh mujibur rahman pdf bangla, the unfinished memoirs sheikh mujibur rahman pdf free download, sheikh mujibur rahman pdf bangla, bangladesh era of sheikh mujibur rahman pdf, the unfinished memoirs sheikh mujibur rahman pdf, oshomapto attojiboni sheikh mujibur rahman pdf free download বঙ্গবন্ধুর বই pdf, বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনী বই, আত্মজীবনী বই pdf, অসমাপ্ত আত্মজীবনী mcq pdf, অসমাপ্ত আত্মজীবনী উক্তি, অসমাপ্ত আত্মজীবনী English PDF, অসমাপ্ত আত্মজীবনী সর্বশেষ কোন ভাষায় অনূদিত, অসমাপ্ত আত্মজীবনী বই থেকে প্রশ্ন, অসমাপ্ত আত্মজীবনী সারাংশ, বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী বাংলা, কারাগারের রোজনামচা pdf, অসমাপ্ত আত্মজীবনী উইকিপিডিয়া, অসমাপ্ত আত্মজীবনী কত সাল পর্যন্ত, অসমাপ্ত আত্মজীবনী mp3

📖কিছু কথাঃ বঙ্গবন্ধু লিখেছেন, চিন্তা করিও না। জীবনের বহু ঈদ এই কারাগারে আমাকে কাটাতে হয়েছে। আরও কত হবে ঠিক নেই! তবে কোনো আঘাতেই আমাকে বাঁকাতে পারবে না। খোদা সহায় আছে।” এটি ছিল ঈদের সময় বঙ্গমাতাকে লেখা বঙ্গবন্ধুর একটি চিঠি। তার এই উক্তি দ্বারা
বোঝা যায় অমন কঠিন সময় তার আত্মবিশ্বাস গলে পড়েনি বরং দৃঢ় থেকে দৃঢ়তম হয়ে রূপান্তর ঘটেছে।

শেখ মুজিবুর রহমানের লেখা চারটি খাতা ২০০৪ সালে আকস্মিকভাবে তাঁর কন্যা শেখ হাসিনার হস্তগত হয়। খাতাগুলি অতি পুরানো, পাতাগুলি জীর্ণ প্রায় এবং লেখা প্রায়শ অস্পষ্ট। মূল্যবান সেই খাতাগুলি পাঠ করে জানা গেল এটি বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী, যা তিনি ১৯৬৭ সালের মাঝামাঝি সময়ে ঢাকা সেন্ট্রাল জেলে অস্তরীণ অবস্থায় লেখা শুরু করেছিলেন, কিন্তু শেষ করতে পারেননি। জেল-জুলুম, নিগ্রহ নিপীড়ন যাঁকে সদা তাড়া করে ফিরেছে, রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে উৎসর্গীকৃত-প্রাণ, সদাব্যস্ত বঙ্গবন্ধু যে আত্মজীবনী লেখায় হাত দিয়েছিলেন এবং কিছুটা লিখেছেনও, এই বইটি তার সাক্ষর বহন করছে।

🖍️বইটি পড়ে যে বিষয় গুলো জানতে পারবেনঃ

১। বইটিতে আত্মজীবনী লেখার প্রেক্ষাপট।
২। লেখকের বংশ পরিচয়, জন্ম, ও কলেজের শিক্ষাজীবনের পাশাপাশি সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড।
৩। দুর্ভিক্ষ, বিহার ও কলকাতার দাঙ্গা, দেশভাগ, কলকাতাকেন্দ্রিক প্রাদেশিক মুসলিম ছাত্রলীগ ও মুসলিম লীগের রাজনীতি।

৪। দেশ বিভাগের পরবর্তী সময় থেকে ১৯৫৪ সাল অবধি। পূর্ব বাংলার রাজনীতি, কেন্দ্রীয় ও প্রাদেশিক মুসলিম লীগ সরকারের অপশাসন।
৫। ভাষা আন্দোলন, ছাত্রলীগ ও আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠা, যুক্তফ্রন্ট গঠন ও নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে সরকার গঠন।
৬। আদমজীর দাঙ্গা, পাকিস্তান কেন্দ্রীয় সরকারের বৈষম্যমূলক শাসন ও প্রাসাদ ষড়যন্ত্রের বিস্তৃত বিবরণ এবং এসব বিষয়ে লেখকের প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতার বর্ণনা রয়েছে।

৭। লেখকের কারাজীবন, পিতা-মাতা, সন্তান-সন্ততি ও সর্বোপরি সর্বংসহা সহধর্মিণীর কথা, যিনি তাঁর রাজনৈতিক জীবনে সহায়ক শক্তি হিসেবে সকল দুঃসময়ে অবিচল পাশে ছিলেন ।
 ৮। একইসঙ্গে লেখকের চীন, ভারত ও পশ্চিম পাকিস্তান ভ্রমণের বর্ণনাও বইটিকে বিশেষ মাত্রা দিয়েছে।

৯। “অসমাপ্ত আত্মজীবনী” গ্রন্থে অন্যান্য বিষয়ের সঙ্গে বাঙালীজাতিরভাষা-সমাজ-সংস্কৃতি-কৃষ্টির প্রতি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একাগ্রচিত্ততা, তাঁর রাষ্ট্রভাবনা, ইতিহাস চেতনা, নেতৃত্ব, নেতৃত্বের স্বরূপ ও বৈশিষ্ট্য, মূল্যবোধ, কারাস্মৃতি।
১০। পাকিস্তানের দুই অংশের মধ্যে প্রভেদ ও বৈষম্য, ভাষা আন্দোলন, আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠার ইতিহাস ও সংগঠন বিস্তার ইত্যাদি বিস্তারিত বর্ণিত হলেও,

🪔একটা বিষয় আমাকে বেশ চমকিত করেছে, আর তা হচ্ছে তাঁর শান্তি সম্মেলন উপলক্ষে গনচীন ভ্রমন। ১৯৫২ সালের সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে চীন শান্তি সম্মেলনে যোগ দেন তিনি। মাও সেতুং-এর দেশ নয়াচীনে তিনি চীনা মানুষের শিক্ষা, আচার, দেশপ্রেম আর দেশ গড়ার একাগ্রতা দেখে অভিভূত হন, এমনকি পশ্চিমা ব্লেন্ডও তিনি পাননা সেখানে ‘সেভ’ করতে, যেহেতু চীনারা দেশেপ্রেমে অনুপ্রাণিত হয়ে পশ্চিমা ব্লেডের পরিবর্তে শেভ করেন নিজ দেশের খুর দিয়ে।

📕অসমাপ্ত আত্মজীবনী বই টি কেন পড়বেন?
এই বইটি পড়ে জানতে পারবেন কেন বঙ্গবন্ধুর নামে এত উপাধি দেওয়া হয়েছে। কেন তাকে বঙ্গের বন্ধু বলা হয়।তার দৃষ্টিকোণে মুক্তিযুদ্ধ কেমন ছিল।তার চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য কেমন ছিল।এছাড়াও চীনের মানুষদের দেশপ্রেম সম্পর্কে জানবেন। এই দেশপ্রেমের কারণেই হয়তো তাদের রাষ্ট্র এত উন্নত।যারা রাজনীতি সম্পর্কে জানতে চায় তাদের অবশ্যই এই বইটি পড়া।

সেসময়কার রাজনীতি সম্পর্কে জানবেন। লেখক এই বইয়ের মাধ্যমে সেই সময় তার সাথে ঘটে যাওয়া সব বিষয় লিখে রেখেছেন।এটি একটি অসাধারণ বই।আমরা বাঙালি আমাদের তো এই বই সম্পর্কে জানতেই হবে, কেননা কোন বিদেশি ভদ্র লোক যদি কখনো জানতে চায় তোমার দেশের জাতিরপিতা সম্পর্কে কিছু বলো তখন যেন আমরা অপারগতার জন্য লজ্জায় মাথা নিঁচু না করি।

🎄আরো একটি কথাঃ
এই বইটির ভৃমিকা লিখেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি সাব জেলে থাকাকালীন সময় বইটির ভৃমিকা লেখেন।পরর্বতীতে বই টি প্রকাশ করেন।আর বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানতে হলে শুধু এই একটি বই পড়লে হবে না জানার শেষ নাই।

📕বই কোথা থেকে কিনবেনঃ এখন ঘরে বসেই রকমারি. কমে বই অর্ডার করা যায়।তাই আর দেরি না করে অর্ডার দিয়ে ফেলুন রকমারি তে।

বইয়ের বিবরণ

বইয়ের নামঃ অসমাপ্ত আত্মজীবনী
লেখকঃ শেখ মুজিবর রহমান
পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ৩৩৭ টি।
ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি বিযয়ক বই, আত্মজীবনী বই
পিডিএফ সাইজঃ ১১ মেগাবাইট প্রায়।
রকমারি থেকে ক্রয় করার লিংকঃ
অসমাপ্ত আত্মজীবনী বই

Download Now

#বইটি ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত। #লেখকের ক্ষতি আমাদের কাম্য নয়,  বইটির হার্ড কপি কেনার সমর্থ থাকলে বইটির হার্ড কপি কিনে পড়ুন।
#(আমাদের ব্লগের সমস্ত বইগুলো ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত। লেখকের বা প্রকাশনীর যদি কোনো বইয়ের PDF নিয়ে অভিযোগ থাকে তাহলে দয়াকরে জানান, আমাদেরকে জানানোর ২৪ ঘন্টার মধ্যে PDF টি রিমুভ করে দিবো।) ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন। ধন্যবাদ পোস্ট টি পড়ার জন্য।